Herbal Trees – Cure of native plants and fruits

দাদ রোগের ভেষজ চিকিৎসা Benefits of Apang tree in curing ringworm

দাদ রোগের ভেষজ চিকিৎসা - Benefits of Apang tree in curing ringworm
ছবি সৌজন্যে: istockphoto Image Author: kitzcorner

দাদ রোগের ঘরোয়া চিকিৎসা Home Remedies for Ringworm ও চুলকানি জাতীয় দাদ রোগের ভেষজ চিকিৎসা Benefits of Apang tree in curing ringworm and itching সম্পর্কে বিশেষ তথ্য। দাদ বা দাউদ রোগের ঘরোয়া চিকিৎসা ও দেশীয় ঔষধি গাছ-গাছড়ার মাধ্যমে রোগ নিরাময় বিষয় নিম্নে বিস্তারিত ভাবে আলোচনা করা হল। বিভিন্ন আয়ুর্বেদিক চিকিৎসা ব্যবহৃত আয়ুর্বেদিক ঔষধি গাছের গুণাবলী যা দাদ দাউদ চিকিৎসায় ব্যবহারের ফলে সুস্থতা পাওয়া যায় চলুন বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক। Natural treatment of ringworm.

আপাং গাছের উপকারিতা Benefits of Apang tree

 

(ACHYRANTHES ASPERA) এই গাছ সাধারণত সাদামাটা ধরনের হয়ে থাকে। এই আপাং গাছ (Apang tree) দেশের সর্বত্র স্থানে জন্মায়, বিশেষ করে বাংলাদেশের উত্তর অঞ্চলে এই গাছ বেশি জন্মায়। এই গাছকে সাধারণত আগাছা বলা হয়ে থাকে তবে এই আগাছার অনেকগুলি ঔষধি গুন আছে। এই গাছের মূল, কাণ্ড, পাতা ও বীজ নানাভাবে কাজে লাগে।

বিশেষত: অর্শ, দাদ, চুলকানি, ঋতুচাপ, কলেরা, চুলপাকা, জ্বর, রক্তক্ষরণ, পেটব্যথা প্রসব বেদনা ও গর্ভপাতের এই গাছের বিভিন্ন ব্যবহার লক্ষ্য করা যায়।

দাদ ও চুলকানি নিরাময়ে (Cures herpes and itching)

 

দাদ একপ্রকার ফাংগাল ইনফেকশন একে ইংরেজিতে Ringworm বলা হয়। এতে, চুলকানির মত কষ্টকর ত্বকের রোগ হওয়ার প্রবণতা দেখা দেয়। শরীরের যেকোনো অংশে এই রোগ হয়ে থাকে এই রোগ ছোঁয়াচে, তাই এই রোগের প্রকোপ দেখা দিলে যত দ্রুত সম্ভব চিকিৎসা শুরু করা উচিত।

এই রোগ নিরাময়ে আপাং গাছ খুবই কার্যকরী ভূমিকা পালন করে থাকে।

  • আপাং গাছের শুকনো ডাটা আগুনে পুড়িয়ে তার চাই তৈরি করে নিতে হবে।
  • ছাই ৮ গ্রাম পরিমাণ সংগ্রহ করে তার সঙ্গে পরিমাণমতো নারকেল তেল দিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিতে হবে।
  • এরপর এই পেস্ট ক্ষতস্থান বা তার ওপর ঘষে ঘষে লাগাতে হবে।
  • কিন্তু, পেস্ট লাগানোর আগে সেই ক্ষতস্থান ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিতে হবে।

এইভাবে পেস্টটি ৩-৪ ডিম লাগালে দাদ সম্পূর্ণরূপে ভালো হয়ে যাবে। এটি পরিক্ষিত একটি ভালো টিপস।

অকালে চুল পাকায় আপাং গাছের উপকারিতা (Benefits of Apang tree in premature hair ripening)

 

কম বয়সে চুল পাকলে খুবই অস্বস্তিকর পরিবেশ তৈরি হয় গবেষকরা বলেছেন এই সমস্যার সঠিক কারণ তারা এখনো বের করতে পারেননি। তবে জিনগত কারণে কম বয়সে চুল পেকে থাকে।

  • অকালে চুল পাকা রোধে আপাং এর টাটকা শিকড় বেটে রস সংগ্রহ করতে হবে।
  • তবে কত পরিমান বাটতে হবে তা নির্ভর করছে কি পরিমাণ চুল পেকেছে তার ওপর।
  • ছেলেদের কম লাগবে এবং মেয়েদের লম্বা চুলের জন্য বেশি লাগবে।
  • এই রস দুপুরে স্নান করার ২-৩ ঘন্টা আগে সারা মাথায় ব্যবহার করলে উপকার খুব সহজেই পাওয়া যাবে।
  • এর ফলে  চুলের রং কালো হবে।
  • নতুন চুল গজাতে শুরু করবে।

বিষাক্ত ক্ষতে আপাং এর ব্যবহার (Apang’s use in toxic wounds)

 

কোন কোন কারণে যদি ক্ষতস্থান বিষিয়ে যায় এবং নানারকম ওষুধের ব্যবহার করেও ভালো না হয় তাহলে

  • আপাং গাছের পাতা ও কচি ডাল বেটে তার রস ১০- ১৫ মিনিট এবং ১-১/২ চামচ ঘি দিয়ে ভেজে সেটা সকালে একবার।
  • রাতে শোবার সময় ক্ষত স্থানে লাগালে ক্ষত দ্রুত সেরে উঠবে।
  • তবে একটা পরিস্কার খালি কাপড় দিয়ে হালকাভাবে ক্ষতস্থান বেঁধে রাখলে ভালো হবে।

ঋতু চাপ (Seasonal stress)

 

অনিয়মিত বেশি ঋতুচাপ হলে ঋতু চাপের পরিমাণ অনুসারে ২-৪ গ্রাম পরিমাণ আপাং এর টাটকা মূল জল দিয়ে বেটে খেলে স্রাব এর পরিমাণ নিশ্চয়ই কমে যাবে। যদি দেখা যায় স্রাব স্বাভাবিক হয়নি

  • তাহলে ৪-৫ ঘন্টা পরে একই পরিমাণ মূল বাটা আরও একবার খেলে বেশি ঋতুচাপ থেকে উপশম পাওয়া যায়।

তবে এটা নির্ভর করে ঋতু চাপের পরিমাণের উপর।

ফোড়ার পুল বের করতে আপাং এর ব্যবহার (Apang’s use to get out the boil pool)

 

দাদ রোগের ভেষজ চিকিৎসায় আপাং গাছের টাটকা পাতা ৮-১০ টি এবং আতপ চাল ৪ গ্রাম উভয়কে ঠান্ডা জল দিয়ে বেটে ফোড়ার চারপাশে প্রলেপ দিলে ভেতর থেকে পুঁজ ও দূষিত রক্ত বের হয়ে আসে।

  • তবে দিনে ২-৩ বার প্রলেপ দিতে হবে।
  • এইভাবে প্রলেপ দিতে থাকলে একদিন এই ফোড়ার কঠিন ব্যথা থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে এবং ফোড়া ভালো হয়ে যাবে।

অকাল প্রসবে আপাং উদ্ভিদ (Apang plant in premature delivery)

 

অকাল প্রসবের সম্ভাবনা দেখা দিলে-

  • আপাং গাছের মঞ্জুরী হয়নি এমন চারাগাছ গোড়া থেকে তুলে সেই গাছ গর্ভবতীর কুটিরে বেঁধে দিলে অকাল প্রসবের ভয় থাকে না।
Disclaimer: উপরোক্ত রোগের বিষয় যে সমস্ত ভেষজ উদ্ভিদের দ্বারা রোগ নিরাময়ের বিষয় বলা হল সেগুলি ব্যবহারের পূর্বে অবশ্যই কোন  বা আয়ুর্বেদিক রোগ বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের সঙ্গে পরামর্শ করবেন। রোগ নিরাময় পদ্ধতি গুলি যদি আপনি ব্যবহার করতে চান সেটি সম্পূর্ণ আপনার ব্যক্তিগত ব্যাপার, এর জন্য herbaltrees.in ওয়েবসাইট কোন ভাবেই দায়ী থাকবে না।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *